দে-ছুট ভ্রমণ সংঘের ছবি প্রতিযোগিতা

দে-ছুট ভ্রমণ সংঘের ছবি প্রতিযোগিতা

পর্তুগাল বাংলানিউজ ডেস্ক: গ্রাম-বাংলার কৃষ্টির সঙ্গে জড়িয়ে থাকা নাম জোলাভাতি। এই শব্দটি এখন প্রায় বিলুপ্ত। শহুরে চারদেয়ালের গন্ডিতে বেড়ে উঠা মানুষগুলো, জোলাভাতি নামটি পাল্টে রেখেছে চড়ুইভাতি। যা অনেকটা জরিনা হতে জেরীন হবার মতন।

বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহি ভ্রমণ সংগঠন দে-ছুট ভ্রমণ সংঘ’র মাসব্যাপি ফটো কন্টেস্ট এর সাত ক্যাটাগরীতে ৭ জন বিজয়ীকে ক্রেস্ট প্রদান উপলক্ষে, হারিয়ে যাওয়া জোলাভাতি শব্দটা নতুন করে এই প্রজম্মের নিকট পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্য ১৫ ডিসেম্বর রাত হতে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত দুদিন ব্যাপি নারায়নগঞ্জর আড়াইহাজার উপজেলার মেঘনার এক চরে জোলাভাতি, ক্যাম্পিং, ক্রেস্ট প্রদান, ও খেলাধুলার আয়োজন করা হয়। জহিরুলের আনা আতশবাজী’তে জোলাভাতি আয়োজনের উদ্বোধন করেন দে-ছুট ভ্রমণ সংঘ’র প্রতিষ্ঠাতা চিফ অর্গানাইজার ও ওপেন ফ্রেন্ডস গ্রুপ এর প্রতিষ্ঠাতা প্রধান উপদেষ্টা মুহাম্মদ জাভেদ হাকিম। উক্ত আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের বেস্ট অর্গানাইজার মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন,প্রিমিয়াম অর্গানাইজার এম.এ কালাম,আইটি এডমিন মুজাহিদ জয় ও এসিস্ট্যান্ট বেস্ট অর্গানাইজার আরাফাত হাসান। আরো উপস্থিত ছিলেন ওপেন ফেন্ডস গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সবুর মিয়া সহ আড়াইহাজার অঞ্চল পর্যটন বিকাশ বান্ধব জনাব শাহিনূর আড়াইহাজারী সহ সংগঠনের নিবেদিত প্রাণ বন্ধুমহল। ১৫ ডিসেম্বর রাতে বিজয়ীদের সম্মানে ক্যাম্পিং, বার-বি-কিউ ও ক্যাম্প ফায়ার চলে। সকালে নিজেরা নিজোরা ডাল-চাল মিলিয়ে খিচুড়ি আর হাসের গোস্ত লাকড়ির চুলায় বসিয়ে শুরু করা হয় জোলাভাতি। এরপর ৭ জন বিজয়ীর মাঝে ৫ জনের উপস্থিতির মধ্য দিয়ে, তাদের হাতে দে-ছুট সম্মাননা পত্র ও ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়। বিজয়ীরা ছিলেন মুহাম্মদ হানিফ, মেহেদি হাসান, নাজমুল, ইয়াসির ইউশা ও নূর ই রাজন। ক্রেস্ট প্রদান শেষে, চৌদ্দর চরে প্রিতি ফুটবল ম্যাচ ও দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

ছবির ছৈয়ালঃ- “দে-ছুট” ভ্রমণ সংঘ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




পর্তুগাল বাংলানিউজ

প্রধান উপদেষ্টা: কাজল আহমেদ

পরিচালক: মোঃ কামাল হোসেন, মোঃ জহিরুল ইসলাম

প্রকাশক: মোঃ এনামুল হক

যোগাযোগ করুন

E-mail : portugalbanglanews24@gmail.com

Portugalbanglanews.com 2019
Developed by RKR BD