দুর্ভোগ-ভোগান্তি ও বাড়তি ভাড়া গুনে  রাজধানীতে ফিরেছে মানুষ

দুর্ভোগ-ভোগান্তি ও বাড়তি ভাড়া গুনে রাজধানীতে ফিরেছে মানুষ

অনলাইন ডেস্ক :

ঈদের ছুটি শেষে দুর্ভোগ-ভোগান্তি মাথায় নিয়ে বাড়তি ভাড়া গুনে তবেই রাজধানীতে ফিরেছেন মানুষ। বেড়েছে ফেরিঘাট, সড়ক-মহাসড়কে যানবাহনের চাপ। তবে, কোথাও বড় রকমের যানজটের খবর এখনো মেলেনি। বরাবরের মতো ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়ের ফাঁদে আটকে পড়েন যাত্রীরা।

বিভাগীয় ও জেলা শহর থেকে প্রতিটি ট্রেন নির্দিষ্ট সময়ের অনেক পরে ছাড়ার অভিযোগ মিলেছে। গতকাল ভোর থেকেই ছিল কমলাপুর ট্রেন স্টেশন ও সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে ঢাকা ফেরত মানুষের ভিড়। ট্রেনের ছাদে ছাদে ছিল ঢাকা ফেরত যাত্রীদের ভিড়, বগিও কানায় কানায় ভরা।
কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার আমিনুল হক জুয়েল বলেন, অনেক ট্রেন বিলম্বে কমলাপুর স্টেশনে আসছে। বিলম্বে আসা ট্রেনগুলো বিলম্বেই ছাড়তে হচ্ছে। এতে যাত্রীদের দুর্ভোগ বাড়ছে। ঈদের আগে ও পরে ট্রেন বিলম্বে চলাচল করাটা স্বাভাবিক। তবে কমলাপুর ঘুরে দেখা যায়, বিশেষ করে পশ্চিমাঞ্চলে চলা প্রতিটি ট্রেনই বিলম্বে চলাচল করেছে।

৬ ঘণ্টা পর্যন্ত বিলম্বে ট্রেন পৌঁছানোর ঘটনাও ঘটেছে। ঢাকায় ফেরত মানুষের স্রোত দেখা গেছে রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলোতেও। ভোর থেকে সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে একে একে ভিড়তে থাকে বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, বরগুনাসহ দক্ষিণাঞ্চল থেকে ছেড়ে আসা লঞ্চগুলো। তবে বেশিরভাগ লঞ্চের যাত্রীই কালোবাজারির মাধ্যমে লঞ্চের কেবিনসহ সাধারণ সিটের ভাড়া ও অতিরিক্ত মূল্য রাখার অভিযোগ করেছেন। এদিকে ঈদের আগে ট্রেনে যে শিডিউল বিপর্যয় শুরু হয়, সেই বিপর্যয় এখনো অব্যাহত থাকায় যাত্রীরা ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

খুলনা, রাজশাহী, রংপুর, দিনাজপুর, নীলফামারী ও লালমনিরহাটসহ উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের কোনো ট্রেনই সময়মতো আসেনি। তিন থেকে ১০ ঘণ্টা দেরিতে পৌঁছা ট্রেনগুলোতে ঢাকায় ফেরা যাত্রীদের ভোগান্তির শেষ ছিল না। গত কয়েক দিনের তুলনায় রোববার ঢাকার রাস্তাঘাটে যানবাহন ও মানুষজনের ভিড় জমে ওঠে। সকাল থেকেই গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে বাস-মিনিবাস, সিএনজি-প্রাইভেটের ছোট ছোট জটলা দেখা গেছে। ঈদকে ঘিরে গত এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে ঢাকায় যে ফাঁকা ফাঁকা পরিবেশ ছিল গতকাল তা ব্যস্ত নগরীতে পরিণত হয়। শনিবার থেকে বেসরকারি অফিস শুরু হলেও, মূলত গতকাল থেকেই পুরোদমে কর্মব্যস্ত হয়ে পড়েছে ঢাকা। গত কয়েক দিনের চেয়ে ঢাকার প্রধান সড়কে যানবাহন ও মানুষের ভিড় অনেক বেড়েছে। এ ছাড়া রেল, বাস ও লঞ্চ টার্মিনালগুলোতেও রাজধানীমুখী মানুষের সংখ্যা অন্য দিনের তুলনায় গতকাল ছিল চোখে পড়ার মতো। গতকাল সকালে কমলাপুর রেলস্টেশনে দেখা যায়, ঈদের ছুটি কাটিয়ে ফিরছেন অসংখ্য মানুষ। তবে, ঈদের আগে যেমন ঢাকা ছাড়ার তাড়া থাকে, এর বিপরীতে অনেকটা ধীরে-সুস্থেই ফিরতে দেখা গেছে সবাইকে। বাস টার্মিনালগুলোতে ছিল অভিন্ন চিত্র।

pbn/k

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




পর্তুগাল বাংলানিউজ

প্রধান উপদেষ্টা: কাজল আহমেদ

পরিচালক: মোঃ কামাল হোসেন, মোঃ জহিরুল ইসলাম

প্রকাশক: মোঃ এনামুল হক

যোগাযোগ করুন

E-mail : portugalbanglanews24@gmail.com

Portugalbanglanews.com 2019
Developed by RKR BD