ড. খন্দকার মোশাররফের ৭৪তম জন্মদিন

ড. খন্দকার মোশাররফের ৭৪তম জন্মদিন

এনামুল হক পর্তুগাল : ১অক্টোবর বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ৭৪তম জন্মদিন। দাউদাকান্দি, মেঘনার বাংলাদেশ জাতীয়তবাদী দলের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা প্রতিবছর দিনটি পালন করলেও এবছর তেমন ভাবে পালন করেননি। তার কারনে জানা যায় ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সুযোগ্য সন্তান তরুণের অহংকার  ব্যারিস্টার খন্দকার মারুফ হোসেন ফেইসবুক স্টেটাসে বলেন উল্লেখ্য করেনবিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন তাঁর ৭৪ তম জন্মদিনে (০১ অক্টোবর) কেক কাটবেন না এবং কোন ফুল গ্রহণ করবেন না। ৭৪ তম জন্মদিনে কোথাও কেক না কাটার জন্য ড.মোশাররফ ঢাকাসহ দাউদকান্দি, মেঘনা, তিতাস, হোমনা উপজেলা ও পৌর বিএনপি এবং অঙ্গসংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের পরামর্শ দিয়েছেন। ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন, Mother of Democracy দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারান্তরীণ। হাজার হাজার নেতাকর্মী মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমুলক মামলায় কারাগারে বন্দী। হুমকি-ধমকি, গ্রেফতার নির্যাতন আতংকে নেতাকর্মীগণ এখন ঘরছাড়া। অত্যন্ত মানবেতর ও দুর্বিষহ জীবন কাটাচ্ছে। দেশের মানুষ ভাল নেই। বর্তমানে দেশে এক শ্বাষরুদ্ধকর অবস্থা বিরাজমান। বিদ্যমান এই নাজুক পরিস্থিতিতে আমার জন্মদিনের কোনো আনুষ্ঠানিকতা মোটেও সমীচীন নয়। বিশেষকরে আমি কখনোই ঘটা করে জন্মদিন পালন করিনি। তিনি বলেন, ৭৪ তম জন্মদিনে দলীয় নেতা-কর্মী ও শুভার্থীদের প্রতি আমার সালাম, আন্তরিক দোয়া ও শুভ কামনা রইল। আমি সবার কাছে দোয়া চাই। আল্লাহ্ আমাদের সহায় হোন।

বরেণ্য এই রাজনীতিক ১৯৪৬ সালের ১ অক্টোবর কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার গয়েশপুর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। খ্যাতিমান এই রাজনীতিবিদ মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, প্রথিতযশা ভূ-বিজ্ঞানী একই সাথে লেখক ও গবেষক। ড. খন্দকার মোশাররফ দাউদকান্দি হাইস্কুল থেকে ১৯৬২ সালে মেট্রিকুলেশন, চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ থেকে ১৯৬৪ সালে আইএসসি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬৮ সালে এমএসসি ডিগ্রী লাভ করেন। এরপর ১৯৭০ সালে লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইম্পেরিয়াল কলেজ থেকে এমএসসি, ১৯৭৩ সালে ডিআইসি ডিপ্লোমা এবং ১৯৭৪ সালে লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচ.ডি ডিগ্রী লাভ করেন। ১৯৭৫ সালে বিলাত থেকে দেশে ফিরে পুনরায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভ‚-তত্ত¡ বিভাগে সহকারী অধ্যাপক হিসাবে যোগদান করেন এবং পর্যায়ক্রমে অধ্যাপক পদে উন্নীত হন। ১৯৮৭ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভ‚-তত্ত¡ বিভাগের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯১ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবার জন্য তিনি ঢাবি’র শিক্ষকতা থেকে পদত্যাগ করেন।

শিক্ষাজীবনে তিনি ১৯৬৪-৬৫ শিক্ষাবর্ষে ঢাবি’র সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের এজিএস ও ১৯৬৭-৬৮ শিক্ষাবর্ষে হাজী মুহাম্মদ মহসিন হলের ভিপি নির্বাচিত হন। মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে বিশ্ব জনমত গড়ে তুলতে তিনি ১৯৭১-এ বিলাত প্রবাসীদের সংগঠিত করেন এবং ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক হিসেবে বলিষ্ঠ নেতৃত্ব দেন। জাতীয় স্বার্থ রক্ষার আন্দোলনে ড. মোশাররফ সব সময় অগ্রণিভূমিকা পালন করেছেন। তিনি বিভিন্ন সরকারের প্রতিহিংসার শিকার হয়ে রাজনৈতিক মামলায় ১৯৮৬, ১৯৯৬, ২০০৭, ২০১২ ও ২০১৪ সালে গ্রেফতার হয়ে প্রায় ৫ বছর কারান্তরীন ছিলেন।

শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে ঢাবি’র এই মেধাবী শিক্ষক ১৯৭৯ সালে বিএনপিতে যোগদান করেন। তিনি বিএনপি’র বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৪ সাল থেকে ড. মোশাররফ বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য পদে অধিষ্ঠিত রয়েছেন। তিনি কুমিল্লা-২ আসন থেকে ৪ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৯১-’৯৬ সময়ে বিএনপি সরকারের বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রী, ১৬৯৬ সালে স্বল্প মেয়াদে সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ২০০১-০৬ সময়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী হিসেবে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করেন।

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন উন্নয়নের এক স্বাপ্নিক পুরুষ। তিনি উন্নয়ন ভাবনার রাজনীতিবিদ। তিনি অনগ্রসর দাউদকান্দি, মেঘনা ও তিতাসকে যুগান্তকারী উন্নয়নের মাধ্যমে এগিয়ে নিয়েছেন। তিনি ‘প্লাবণ ভ‚মিতে মৎস্য চাষ’ পদ্ধতির উদ্ভাবক। এই উদ্ভাবনের মাধ্যমে ড. মোশাররফ বাংলাদেশে মৎস্য খাতের উন্নয়নে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। ব্যাক্তি জীবনে ড. খন্দকার মোশাররফ ২ পুত্র ও ১ কন্যা সন্তানের জনক।

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ৭২ তম জন্ম দিন উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠন শুভেচ্ছা জানিয়েছে। নির্বাচনী এলাকায় তারই প্রতিষ্ঠিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নানা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের জন্মদিন উদযাপিত হবে। এ ছাড়া ঢাকায় স্ত্রী ছেলে-মেয়ে ও নাতি-নাতনীদের নিয়ে গুলশানের নিজ বাসভবনে ঘরোয়াভাবে জন্মদিন উদযাপিত হবে। প্রবীন এই রাজনীতিবিদের জন্মদিনে পর্তুগাল বাংলানিউজ পক্ষ থেকেও শুভেচ্ছা রইল।

তথ্য সুত্র : ইনকিলাব

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




পর্তুগাল বাংলানিউজ

প্রধান উপদেষ্টা: কাজল আহমেদ

পরিচালক: মোঃ কামাল হোসেন, মোঃ জহিরুল ইসলাম

প্রকাশক: মোঃ এনামুল হক

যোগাযোগ করুন

E-mail : portugalbanglanews24@gmail.com

Portugalbanglanews.com 2019
Developed by RKR BD