আল্প্সের আঁকেবাঁকে

আল্প্সের আঁকেবাঁকে

জার্মানি-অস্ট্রিয়া-স্লোভেনিয়া-অস্ট্রিয়া-জার্মানি ভ্রমণ ছিল আমার জন্য এক রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা। শীতের এই সময়ে বরফে ঢাকা রাস্তা আর প্রকৃতির মধ্যে দিয়ে ভ্রমণের সেই অভিজ্ঞতা সত্যিই এক অসাধারণ স্মৃতি। বিশেষ করে বিখ্যাত আল্পস পর্বতের নিকট দিয়ে ভ্রমণের অভিজ্ঞতা ছিল বড়োই মধুর। দুই দিন ব্যাপী আল্পস পর্বত পরিবেষ্টিত এই তিনটি দেশের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান গুলোতে আমাদের ভ্রমন যেন স্বপ্নের অবগাহন।

আল্পস হলো সারা ইউরোপের সবচেয়ে বড়ো পর্বতমালা। এ পর্বতমালাটি অস্ট্রিয়া, ফ্রান্স, জার্মানী, ইটালি, লিনচেস্টাইন, মুনাকু স্লোভেনিয়া এবং সুইজারল্যান্ড এর মধ্যে ১২০০ মাইল ব্যাপী বিস্তৃত। মন্ট ব্ল্যাংক হলো আল্পসের সবচে উঁচু পর্বত শৃঙ্গ যাহা ইতালি আর সুইজারল্যান্ড এর মধ্যে অবস্থিত। এই শৃঙ্গের উচ্চতা ৪৮১০ মিটার (১৫৭৮১ ফুট)। এই আল্পস পর্বতমালা ইউরোপের রাজনীতি, সংস্কৃতি, অর্থনীতি, জলবায়ু ইত্যাদির উপর বিরাট প্রভাব বিস্তার করে আছে। তাই এই আল্প্সকে ঘিরে রচিত হয়েছে ইতিহাসের অনেক অধ্যায়। হানিবল ( Hannibal (247 – between 183 and 181 BC)) নামের ইতিহাসের বিখ্যাত কমান্ডার হাতি নিয়ে এই আল্পসপর্বতমালা পারি দিয়েছিলেন। রোমানরা এই আল্পস এর নিকট তাদের বসতি স্থাপন করেছিল। নেপোলিয়ন তার ৪০০০০ সৈন্য বাহিনী নিয়ে এই বিখ্যাত আল্পসের এক বড় পর্বত অতিক্রম করেছিলেন। দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্দের সময় এডলফ হিটলার বাভারিয়ান আল্পসের নিকট থেকে কৌশলগত কারণে তার প্রধান কার্যক্রম ঘাঁটির কার্যক্রম পরিচালনা করতেন।

আল্প্স থেকে উৎপত্তিটি হয়েছে ইউরোপের অনেক বিখ্যাত নদীর। রাইন (Rhine), রোহনে (Rhône), টিসিনো (Ticino) আর পো (Po) তাদের মধ্যে অন্যতম। বিখ্যাত দানিয়ুব (Danube) নদীর ও উৎপত্তি এই আলপসেই। জার্মান আল্প্স এর বাভারিয়ান অঞ্চলে Königssee হলো দর্শনার্থীদের এক প্রিয় স্থান। সেখানেও আমরা গতকাল অতিবাহিত করলাম একটা ঘন্টা। আল্পস এর জার্মানি, অস্ট্রিয়া আর স্লোভেনিয়ার বিভিন্ন আঁকেবাঁকে পথ চলতে চলতে নিজেকে যেন হারিয়ে ফেলেছি স্বপ্নের রাজ্যে।

অল্পাইন অঞ্চলের রয়েছে শক্তিশালী সাংস্কৃতিক পরিচিতি। এখনো আলপাইন অঞ্চলের গ্রাম গুলোতে cheese মেকিং আর কাঠের কাজ গুলো বিদ্যমান। দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের পর এখানে ট্যুরিজম ইন্ডাস্ট্রি ও বিকাশ লাভ করতে থাকে। আল্প্স অঞ্চলে এখন ১৪ মিলিয়ন মানুষ বসবাস করে আর প্রতিবছর আল্পসের সৌন্দর্য উপভোগ করতে এখানে আসে প্রায় ১২০ মিলিয়ন দর্শনার্থী। আল্প্স হলো সত্যিকার অর্থে সৃষ্টির এক অপূর্ব নিদর্শন, ইতিহাসের এক গৌরবময় অধ্যায়, মানবতার জন্য এক জীবন সঞ্জীবিনী। আর আল্পসের দিকে যতটুকু দৃষ্টি যায় তা দেখে মনে হয় এ বিশাল পর্বতমালা যেন দাঁড়িয়ে আছে মানবতার এক ঐক্যের মূর্তপ্রতীক হয়ে।

ঘুড়ে এসে লিখেছেন : মুহাম্মদ আব্দুর রহিম, 

কান্ট্রি ম্যানেজার ব্র্যাক সাজন এক্সচেইন্জ লিমিটেড, পর্তুগাল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




পর্তুগাল বাংলানিউজ

প্রধান উপদেষ্টা: কাজল আহমেদ

পরিচালক: মোঃ কামাল হোসেন, মোঃ জহিরুল ইসলাম

প্রকাশক: মোঃ এনামুল হক

যোগাযোগ করুন

E-mail : portugalbanglanews24@gmail.com

Portugalbanglanews.com 2019
Developed by RKR BD